বৃহঃস্পতিবার ১৯শে জুলাই ২০১৮ সকাল ১০:১৬:৪১

Print Friendly and PDF

কনুই ও হাঁটুর কালো দূর করতে


লাইফস্টাইল ডেস্ক:

প্রকাশিত : সোমবার ৫ই মার্চ ২০১৮ সকাল ০৯:৫০:০৪, আপডেট : বৃহঃস্পতিবার ১৯শে জুলাই ২০১৮ সকাল ১০:১৬:৪১,
সংবাদটি পড়া হয়েছে ৪৩৮ বার

প্রতীকী ছবি।

অনেক সময় কনুই ও হাঁটু কালো ও অপরিচ্ছন্ন হয়ে যায়। কিন্তু সাবান ব্যবহার করে এসব দাগ দূর করা যায় না। যখন ত্বকে এ রকম দাগ দেখা যায়, তখন সাবান ঘষলে তা আরও বেড়ে যাতে পারে। প্রাকৃতিক উপায়ে এসব দাগ দূর করা যায়।

কনুইয়ের দাগ দূর করার পাঁচটি প্রাকৃতিক উপায় জেনে নিন:

লেবু: লেবুতে প্রাকৃতিক ব্লিচিং উপাদান থাকে, যা ত্বক পরিষ্কার করে। ত্বকের যেসব এলাকায় দাগ মনে হবে, সেসব স্থানে লেবুর রস ঘষে আস্তে আস্তে ম্যাসাজ করুন। এরপর তা ১০ মিনিট রেখে দিন এবং হালকা গরম পানিতে ধুয়ে ফেলুন। টানা কয়েক সপ্তাহ এ নিয়ম মানলে পার্থক্য বুঝতে পারবেন।

ঘৃতকুমারী: ত্বক নমনীয় করে অ্যালোভেরা বা ঘৃতকুমারী। মাংসল ঘৃতকুমারীর থেকে তার স্বচ্ছ জেলির মতো শাঁস খসখসে ত্বকের ওপর ঘষতে পারেন। এরপর তা ২০ মিনিট পর্যন্ত রেখে দিন। এরপর ঠান্ডা পানিতে তা ধুয়ে ফেলুন। অ্যালোভেরা ময়েশ্চারাইজার মাখিয়ে রাখুন।

নারকেল তেল: খসখসে শুষ্ক ত্বক নরম করতে তাতে নারকেল তেল দিয়ে ম্যাসাজ করুন। এরপর হালকা গরম পানিতে গোসল করে ফেলতে পারেন। তবে সাবান মাখবেন না। পারলে শরীরে কয়েক ফোঁটা লেবুর রস মাখতে পারেন।

দই: দইকে দারুণ ময়েশ্চারাইজার হিসেবে মনে করা হয়। কিন্তু অনেকেই জানেন না—টকদই ব্যবহারে ত্বকের দাগ দূর করা যায়। টকদইয়ের সঙ্গে এক চামচ ভিনেগার ও কিছুটা বেসন যুক্ত করে তা ত্বকে লাগাতে পারেন। ১৫ মিনিট পর হালকা গরম পানিতে তা ধুয়ে ফেলতে হবে।

বেকিং সোডা: দুধের সঙ্গে বেকিং সোডা মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। ওই পেস্ট কনুই বা হাঁটুতে লাগান। পাঁচ মিনিট পর তা ধুয়ে ফেলুন। দুই মাস ধরে প্রতি সপ্তাহে একবার এ পেস্ট মেখে দেখুন। তথ্যসূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া।