বৃহঃস্পতিবার ১৯শে জুলাই ২০১৮ সকাল ০৮:০৫:৪৯

Print Friendly and PDF

মাত্রাতিরিক্ত ঘুম মস্তিষ্কের বয়স বৃদ্ধি করে!


স্বাস্থ্য ডেস্ক:

প্রকাশিত : বৃহঃস্পতিবার ২৬শে অক্টোবর ২০১৭ সকাল ০৯:৪২:১৭, আপডেট : বৃহঃস্পতিবার ১৯শে জুলাই ২০১৮ সকাল ০৮:০৫:৪৯,
সংবাদটি পড়া হয়েছে ৩৯২ বার

সময়নিউজ ডট নেট:
ঢাকা: বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, মাত্রাতিরিক্ত ঘুম মানব মস্তিষ্কের বয়স বৃদ্ধি করে! যার ফলে বয়সের তুলনায় কর্মক্ষমতা হ্রাস পাওয়ার সম্ভাবনা প্রকট হয়ে থাকে। তাছাড়া মাত্রাতিরিক্ত ঘুম জীবননাশের কারণও হয়ে উঠতে পারে! সাধারণত ডাক্তাররা অন্তত ৬ ঘণ্টা ঘুমানোর পরামর্শ দিয়ে থাকেন।

তবে আপনি যদি প্রতিদিন ৯-১০ ঘণ্টা ঘুমান। তাহলে এ মাত্রাতিরিক্ত ঘুম আপনার জন্য মোটেই ভালো নয় বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

তাছাড়া মাত্রাতিরিক্ত ঘুম একটা রোগ যাকে Hypersomnia বলা হয়ে থাকে। এ রোগ হয়ে থাকলে মানুষ সাধারণত দিনে বা রাতে খুব বেশি পরিমানে ঘুমিয়ে থাকে। মানুষ খুব বেশি পরিমানে ঘুমালে অলস হয়ে যায়, কর্মক্ষমতা হারিয়ে ফেলে, মেজাজ খিটখিটে হয়ে যায়। অতিরিক্ত ঘুম স্থুলতা, মাথা বেথা, শরীরের বেথা, হতাশার অন্যতম কারণ। এক জরিপে দেখা গেছে, প্রাপ্ত বয়স্ক মানুষ যদি রাতে ৯ ঘন্টা বা তার অধিক সময় ঘুমায় তার মৃত্যর ঝুকি ৭-৮ ঘন্টা ঘুমানো মানুসের তুলনায় বেশি থাকে।

চিকিৎসকরা বলছেন, মস্তিষ্কের বয়স বেড়ে যাওয়ার কারণেই মানুষ সৃজনশীলতা হারায়। যে কাজটা আগে দারুণ এবং নিপুণ হতে পারত, মস্তিষ্কের বয়স বৃদ্ধির কারণে সেই কাজটাই তুলনায় খারাপ হয়।

চিকিৎসকরা আরও বলেছেন, মাত্রাতিরিক্ত ঘুম হৃদ রোগের কারণও হতে পারে। বেশি ঘুমের কারণে হৃদপিণ্ডের ভেন্ট্রিকেল পেশী মোটা এবং ঘন হয়ে যায়। তা থেকে হার্ট অ্যাটাকের মত ঘটনাও ঘটতে পারে। একই সঙ্গে দরকারের থেকে বেশি ঘুম যে মানবদেহে মেদ বহুলতার সৃষ্টি করে, সেকথাও জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।