বৃহঃস্পতিবার ১৯শে জুলাই ২০১৮ সকাল ০৮:০৫:২৫

Print Friendly and PDF

দৌলতদিয়া-পাটুরিয়ায় গাড়ির দীর্ঘ সারি


জেলা সংবাদদাতা:

প্রকাশিত : রবিবার ২২শে অক্টোবর ২০১৭ রাত ০৮:৪৮:০৪, আপডেট : বৃহঃস্পতিবার ১৯শে জুলাই ২০১৮ সকাল ০৮:০৫:২৫,
সংবাদটি পড়া হয়েছে ৫৬৪ বার

পণ্যবাহী কয়েক শ ট্রাক দু-তিন দিন ধরে এভাবে পারাপারের অপেক্ষায় আটকে রয়েছে।

সময়নিউজ ডট নেট:

রাজবাড়ী: চারটি ফেরি বিকল ও একটি ঘাটে সমস্যা থাকায় রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া ও মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া নৌপথে গাড়ি পারাপার ব্যাহত হচ্ছে। গত শুক্র ও শনিবার বৈরী আবহাওয়ার কারণে এই নৌপথে প্রায় ১২ ঘণ্টা ফেরি চলাচল বন্ধ ছিল। এসব কারণে আজ রোববার বিকেল পর্যন্ত উভয় ঘাটে গাড়ির লম্বা সারি তৈরি হয়। পণ্যবাহী কয়েক শ ট্রাক দু-তিন দিন ধরে এভাবে পারাপারের অপেক্ষায় আটকে রয়েছে।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন সংস্থা (বিআইডব্লিউটিসি) দৌলতদিয়া কার্যালয় জানায়, দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথে মোট ১৬টি ফেরির মধ্যে চার দিন ধরে রোরো ফেরি শাহজালাল এবং কেটাইপ কুমারী যান্ত্রিক ত্রুটিতে বিকল হয়ে পাটুরিয়ার ভাসমান কারখানা মধুমতীতে রাখা হয়েছে। এ ছাড়া আরও দুটি রোরো বীরশ্রেষ্ঠ হামিদুর রহমান ও মতিউর রহমানের ইঞ্জিন দুর্বল থাকার কারণে ঠিকমতো যানবাহন পারাপার করতে না পারায় ফেরি দুটিকে বসিয়ে রাখা হয়েছে। যদিও গতকাল সারা দিনে হামিদুর রহমান দুটি ট্রিপ দিলেও খুব ঝুঁকি নিয়ে পারাপার হয়। বাকি ছোট-বড় মোট ১২টি ফেরি দিয়ে যানবাহন পারাপার করা হচ্ছে। এ ছাড়া গত শুক্র ও শনিবার বৈরী আবহাওয়ার কারণে প্রায় ১২ ঘণ্টার মতো ফেরি চলাচল বন্ধ থাকায় উভয় ঘাটে আটকা পড়ে শত শত গাড়ি। সেই সঙ্গে শনিবার বিকেল থেকে দৌলতদিয়ার চারটি ঘাটের মধ্যে ২ নম্বর ঘাটের একটি পকেট নষ্ট হয়ে আছে।

আজ বিকেলে দেখা যায়, ফেরিঘাট থেকে দৌলতদিয়া-খুলনা মহাসড়কের প্রায় দুই কিলোমিটার দীর্ঘ দুই সারিতে যাত্রীবাহী বাস, পণ্যবাহী গাড়ি দাঁড়িয়ে আছে। দাঁড়িয়ে থাকা পণ্যবাহী কাভার্ড ভ্যানের চালক আরশাদ আলী বলেন, গত শুক্রবার দুপুরের দিকে বরিশাল থেকে মাল বোঝাই করে ঢাকার উদ্দেশে রওনা হন। গোয়ালন্দ মোড় এলাকায় আসার পর পুলিশ তাঁদের গাড়িকে ঘাটের দিকে আসতে বারণ করে আটকে দেয়।

বিআইডব্লিউটিসি দৌলতদিয়া কার্যালয়ের ব্যবস্থাপক শফিকুল ইসলাম বলেন, ১৬টি ফেরির মধ্যে চারটি ফেরি চার দিন ধরে বিকল হয়ে আছে। সেই সঙ্গে শনিবার বিকেল থেকে একটি ঘাটের একটি পকেটও নষ্ট। তা ছাড়া শুক্র ও শনিবার প্রায় ১২ ঘণ্টা ফেরি বন্ধ থাকায় উভয় ঘাটে কয়েক শ গাড়ি আটকে আছে। তবে এই মুহূর্তে বড় ফেরির সংখ্যা আরও বাড়ানো দরকার। বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।