বৃহঃস্পতিবার ২২শে নভেম্বর ২০১৮ বিকাল ০৪:৩০:২৬

Print Friendly and PDF

অটোচালকের অ্যাকাউন্টে ৩০০ কোটি, গোয়েন্দা সংস্থার তলব!


রকমারি ডেস্ক:

প্রকাশিত : বুধবার ১৭ই অক্টোবর ২০১৮ সন্ধ্যা ০৬:৩২:৪৫, আপডেট : বৃহঃস্পতিবার ২২শে নভেম্বর ২০১৮ বিকাল ০৪:৩০:২৬,
সংবাদটি পড়া হয়েছে ৭৩ বার

প্রতীকী ছবি

পাকিস্তানে এক অটোচালকের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে ৩০০ কোটি টাকার লেনদেন হয়েছে। এই ঘটনার পর সেই অটোচালককে ডেকে পাঠিয়েছে পাকিস্তানের গোয়েন্দা সংস্থা ফেডারেল ইনভেস্টিগেটিং এজেন্সি (এফআইএ)।

তবে তার অ্যাকাউন্টে এমন মোটা অঙ্কের লেনদেনের খবর জানতেন না বলে দাবি করেছেন রশিদ নামের সেই অটোচালক। রশিদ জানিয়েছেন, এফআইয়ের নোটিস দেখে হতবাক তিনি। সেই গোয়েন্দা সংস্থা অভিযোগ করেছে তার অ্যাকাউন্টে ৩০০ কোটি টাকার লেনদেন হয়েছে। তবে তিনি কিছুই টের পাননি বলে দাবি তার।

এফআইএ'র অফিসে গেলে তাকে সেই লেনদেনের তথ্য দেখানো হয়। তা দেখে অবাক হয়ে যান রশিদ। তিনি বলেন, কীভাবে আমার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে এত টাকার লেনদেন হল জানি না। রীতিমতো ভয়ে রয়েছেন বলে স্বীকারও করেন তিনি।

রশিদ জানিয়েছেন, ২০০৫ সালে স্যালারি অ্যাকাউন্ট খুলে দিয়েছিল তার কোম্পানি। সেখানে তিনি ড্রাইভারের কাজ করতেন বলে জানান রশিদ। তবে এক মাস আগেই সেই চাকরি ছেড়ে দিয়ে নিজেই ব্যবসা করছেন রশিদ। তার কথায়, “সারা জীবনে এক লাখ টাকা দেখেনি। ৩০০ কোটি টাকার লেনদেন শুনে রীতিমতো ভয়ে রয়েছি।”

উল্লেখ্য, পাকিস্তানের সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে হিসাব বহির্ভূত সম্পত্তির খোঁজে তদন্তে নেমেছে এফআইএ গোয়েন্দা সংস্থার কর্মকর্তারা। পাকিস্তানের রাঘব বোয়ালদের ঘরে হানা দিচ্ছেন তারা। সে দেশের শিল্পপতি থেকে রাজনীতিক বাদ পড়ছেন না কেউ। এর মাঝে কীভাবে অটো চালক চলে এলেন, তা নিয়ে চিন্তিত খোদ তদন্তকারীরা।