সোমবার ২৩শে এপ্রিল ২০১৮ ভোর ০৪:২১:০৭

Print Friendly and PDF

বিএনপি নির্বাচনে যাবেই: খালেদা জিয়া


নিজস্ব প্রতিবেদক:

প্রকাশিত : মঙ্গলবার ২রা জানুয়ারী ২০১৮ সন্ধ্যা ০৭:৩২:৩৫, আপডেট : সোমবার ২৩শে এপ্রিল ২০১৮ ভোর ০৪:২১:০৭,
সংবাদটি পড়া হয়েছে ৩২৯ বার

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বলেছেন, বিএনপি নির্বাচনে যাবেই। চাইলেও বিএনপিকে নির্বাচন থেকে বিরত রাখা যাবে না। তবে সে নির্বাচন হতে হবে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউটে ছাত্রদলের প্রতিষ্ঠাবার্ষির্কীর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

এর আগে অনুষ্ঠানে যোগ দিতে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট চত্বর পৌঁছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। মঙ্গলবার বিকাল পৌনে পাঁচটার দিকে তিনি সেখানে পৌঁছান।

গেট খুলতে না দেয়ায় ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিউশনের চত্বরে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কর্মসূচি পালনের সিদ্ধান্ত নেয় ছাত্রদল। বিকালে সেখানে স্থাপন করা অস্থায়ী মঞ্চে বক্তব্য বক্তব্য দেন বিএনপির কয়েকজন কেন্দ্রীয় নেতা। পরে সমাবেশের জন্য ইঞ্জিনিয়ার ইন্সটিটিউশন মিলনায়তন খুলে দেয়া হয়।

এর আগে মঙ্গলবার বিকালে ৩৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সমাবেশের অনুমতি থাকলেও মিলনায়তনের গেইট বন্ধ থাকায় ভেতরে ঢুকতে পারেননি ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা। তাই ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট চত্বরে দুপুর থেকে বিক্ষোভ করে সংগঠনটির নেতাকর্মীরা।

প্রায় একমাস আগে অনুমতি নেয়া হলেও মঙ্গলবার সকালে হঠাৎ করে নিরাপত্তার কথা বলে অনুষ্ঠান করা যাবে না বলে কর্তৃপক্ষ ছাত্রদলের নেতাদের জানান। পরে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর নয়াপল্টনে সংবাদ সম্মেলন করে একথা জানিয়ে প্রশাসনের কাছে নির্বিঘ্নে সমাবেশ করতে সহযোগিতা কামনা করেন।

এদিকে বেলা ১১টার পর থেকেই ছাত্রদলের বিভিন্ন ইউনিটের নেতাকর্মীরা মিছিলসহ অনুষ্ঠানস্থলে আসতে থাকেন। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে নেতাকর্মীদের উপস্থিতি বাড়তে থাকে।

খালেদা জিয়া আসার আগে বিকাল তিনটার দিকে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, ভাইস চেয়ারম্যান আমান উল্লাহ আমান, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, সৈয়দ মুয়াজ্জেম হোসেন আলাল, হাবিব উন নবী খান সোহেল, প্রচার সম্পাদক শহিদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানি, সুলতান সালাউদ্দিন টুটু, শামা ওবায়েদসহ বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতারা অনুষ্ঠানস্থলে আসেন।