বুধবার ১৭ই অক্টোবর ২০১৮ রাত ০৮:৪৭:৫৩

Print Friendly and PDF

ছাত্রলীগ ক্যাম্পাসে আগ্রাসী শক্তিতে পরিণত হয়েছে : বিএনপি


নিজস্ব প্রতিবেদক:

প্রকাশিত : সোমবার ১৬ই জুলাই ২০১৮ সকাল ০৯:৪০:৪৫, আপডেট : বুধবার ১৭ই অক্টোবর ২০১৮ রাত ০৮:৪৭:৫৩,
সংবাদটি পড়া হয়েছে ২৬২ বার

গতকাল রোববার শহীদ মিনার এলাকায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও ছাত্রদের ওপর হামলা চালায় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসগুলোতে ছাত্রলীগ আগ্রাসী শক্তিতে পরিণত হয়েছে বলে মন্তব্য করেছে বিএনপি। সোমবার সকালে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এমন মন্তব্য করেন দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

বিএনপির এ নেতা বলেন, ছাত্রলীগ বিবেকহীন মনুষ্যত্বহীন উন্মাদনায় ক্যাম্পাসে এক আগ্রাসী শক্তিতে পরিণত হয়েছে। তারা ধারালো ছুরি, হাতুড়ি, বাঁশের লাঠি, হকিস্টিক ব্যবহার করে ঝাঁপিয়ে পড়ছে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর।

তিনি বলেন, গতকালও (রোববার) কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ছাত্র শিক্ষক ও অভিভাবকদের ওপর হামলা চালিয়েছে ছাত্রলীগ। কোটা সংস্কার এবং ছাত্রলীগের হামলার বিচারের দাবিতে মানববন্ধন শেষে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা ফেরার সময় ধারালো অস্ত্র নিয়ে তাদের ওপর হামলা চালানো হয়।

রিজভী বলেন, আন্দোলনকারীদের গুমের হুমকি, শিক্ষক-শিক্ষিকাদের শারীরিকভাবে নাজেহাল, গালাগালি, বক্তৃতার সময় মাইক বন্ধ করে দেয়া ও প্রতিনিয়ত হুমকি দিচ্ছে ছাত্রলীগ। ছাত্রীদের শুধু লাঞ্ছিতই করছে না, ধর্ষণেরও হুমকি দিচ্ছে তারা।

শাসকের বিরোধিতা করার অর্থ রাষ্ট্রের বিরোধিতা করা নয় মন্তব্য করে তিনি বলেন, সরকারের বিরোধিতার জন্য নিরপরাধ ব্যক্তিদের পুলিশ ও দলীয় ক্যাডারদের দিয়ে রক্তাক্ত করা ঘোরতর অন্যায় ও পাপ। গতকাল শহীদ মিনারে ছাত্রলীগের তাণ্ডব পুলিশের উপস্থিতিতেই ঘটেছে। শেখ হাসিনার প্রশ্রয়ে ছাত্রলীগের নিষ্ঠুরতায় দেশে এখন তামসিক যুগ চলছে।

রিজভী বলেন, কোটা আন্দোলন নিয়ে সরকারের নাটক ও প্রতারণার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে সাধারণ শিক্ষার্থী ও শিক্ষকরা ক্ষুদ্ধ। ছাত্র আন্দোলনের মুখে কোটা আন্দোলনের দাবি মেনে নেয়ার ঘোষণা দিয়ে সেদিন প্রধানমন্ত্রী যে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করতে চেয়েছিলেন, সেটিতে ব্যর্থ হয়ে এখন তিনি আন্দোলনকারীদের দমাতে ছাত্রলীগকে লেলিয়ে দিয়েছেন।

‘অথচ ওবায়দুল কাদের সাহেব বলেছেন, বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ছাত্রলীগের নামে কিছু হচ্ছে কিনা জানতে হবে। নিজ দলের অনাচার ও অপকর্ম তার না জানারই কথা, চোখে না পড়ারই কথা। ছাত্রলীগকে রক্তের নেশা পাইয়ে দিতে উৎসাহিত করেছে আওয়ামী নেতারাই।’