সোমবার ২২শে অক্টোবর ২০১৮ রাত ০১:৫১:২৫

Print Friendly and PDF

সরকারের পছন্দে খালেদা জিয়ার মেডিকেল রিপোর্ট : রিজভী


নিজস্ব প্রতিবেদক:

প্রকাশিত : সোমবার ১৭ই সেপ্টেম্বর ২০১৮ সকাল ১০:৪৩:৪০, আপডেট : সোমবার ২২শে অক্টোবর ২০১৮ রাত ০১:৫১:২৪,
সংবাদটি পড়া হয়েছে ২৪৪ বার

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য নিয়ে সরকার দলের অনুগত বোর্ড সদস্যরা সরকারের পছন্দ অনুয়ায়ী পরামর্শ দিয়েছেন বলে মন্তব্য করেছেন দলটির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। আজ সোমবার নয়াপল্টনে দলটির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

রিজভী বলেন, ‘অবৈধ আওয়ামী সরকার সুপরিকল্পিতভাবে খালেদা জিয়াকে চিকিৎসা না দিয়ে তার অসুস্থতা চরম শোচনীয় অবস্থায় উপনীত করার চক্রান্ত চালিয়ে আসছে। সরকারি দলের অনুগত চিকিৎসকদের দিয়ে গঠিত মেডিকেল বোর্ড কারাগারে তাকে ২০ মিনিটে তথাকথিত পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে বিএসএমএমইউতে ভর্তির পরামর্শ দিয়েছেন।’

তিনি বলেন, গতকাল মেডিকেল বোর্ডের সঙ্গে বৈঠক শেষে হাসপাতালের পরিচালক সাংবাদিকদের বলেছেন, খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য ঝুঁকিপূর্ণ নয়, কোনো আশঙ্কার কারণ নেই, তার সব ধরনের চিকিৎসা দিতে প্রস্তুত রয়েছে বিএসএমএমইউ (পিজি হাসপাতাল)।
‘পরিচালককে মেডিকেল বোর্ডের সদস্যরা বলেছেন-বেগম জিয়ার পুরোনো রোগগুলোই তারা পেয়েছেন, অন্য কিছু নয়। অর্থাৎ আমরা পূর্বেই বলেছিলাম-দেশনেত্রীর স্বাস্থ্য নিয়ে সরকার দলের অনুগত বোর্ড সদস্যরা সরকারের পছন্দানুযায়ী পরামর্শ দেবেন-সেটিই প্রমাণিত হলো’, মন্তব্য করেন রিজভী।

তিনি আরও বলেন, খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য যদি ঝুঁকিপূর্ণ না হয় তাহলে অন্যের সাহায্য ছাড়া তিনি এপাশ ওপাশ হতে পারেন না কেন? একথা তো মেডিকেল বোর্ডই স্বীকার করেছে। তার অসুস্থতা নিয়ে মেডিকেল বোর্ডের বক্তব্য স্ববিরোধী ও সরকারের চিন্তারই প্রতিফলন।
বিএনপির এই নেতা বলেন, খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে গঠিত সরকারি মেডিকেল বোর্ডের পরামর্শ একদেশদর্শী ও সার্বজনীন চিকিৎসানীতির পরিপন্থী। একজন রোগীকে তার পছন্দ অনুযায়ী চিকিৎসা দেওয়া উচিত, এটি তার মানবাধিকার। সেটি না করে কর্তৃপক্ষ জোর করে নিজেদের পছন্দের চিকিৎসকদের দিয়ে খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করানো চরম প্রতিহিংসাপরায়ণ জেদেরই বহিঃপ্রকাশ।

তিনি আরও বলেন, খালেদা জিয়াকে চরম স্বাস্থ্যঝুঁকিতে নিয়ে যাওয়ার জন্যই সরকারের ইচ্ছা অনুযায়ী মেডিকেল বোর্ড ‘ম্যানুফ্যাকচারিং প্রতিবেদন’ দিয়েছে। আর সেজন্যই বেগম জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসকদেরকে বোর্ডে অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি।

এ সময় দলের পক্ষ থেকে কর্তৃপক্ষের একগুঁয়েমি ও প্রতিহিংসাপরায়ণতার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান রিজভী। একই সঙ্গে অবিলম্বে মেডিকেল বোর্ডে খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের অন্তর্ভুক্ত করে বেসরকারি কোনো বিশেষায়িত হাসপাতালে ভর্তি করে সুচিকিৎসা নিশ্চিত করার দাবি জানান তিনি।

নির্বাচন প্রসঙ্গে রিজভী বলেন, শেখ হাসিনাকে পদত্যাগ করতেই হবে, নির্দলীয়-নিরপেক্ষ সরকারের অধীনের জাতীয় নির্বাচন দিতেই হবে। আর সেই নির্বাচনে বিএনপির নেতৃত্ব দেবেন খালেদা জিয়া। স্বৈরাচারের লৌহকপাট আর বেশিদিন বন্ধ রাখা যাবে না। খালেদা জিয়ার মুক্তিই হচ্ছে গণতন্ত্রের শক্তি।