সোমবার ২০শে আগস্ট ২০১৮ বিকাল ০৪:৪২:৩৩

Print Friendly and PDF

হ্যাকিংয়ের মাধ্যমে ফল পরিবর্তনের চেষ্টাসিলেটে প্রশ্নফাঁস চক্রের ৪ সদস্য আটক


শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি:

প্রকাশিত : বুধবার ১৮ই এপ্রিল ২০১৮ সন্ধ্যা ০৭:১৭:২৫, আপডেট : সোমবার ২০শে আগস্ট ২০১৮ বিকাল ০৪:৪২:৩৩,
সংবাদটি পড়া হয়েছে ৩৮১ বার

সিলেট শিক্ষা বোর্ডের ওয়েবসাইট হ্যাক করে ফল পরিবর্তন ও প্রশ্নফাঁসের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে ৪ জনকে আটক করেছে র‌্যাব।

মঙ্গলবার রাতে মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে বিরাইমপুর বাবলা স্কুল রোডের একটি বাড়ি থেকে তাদের আটক করা হয়। আটককৃতরা হলেন- শ্রীমঙ্গলের বিরাইমপুর গ্রামের মুকবুল আলীর ছেলে মো.শওকত হোসেন, তার ভাই সৌরভ হোসেন, উপজেলার শ্যামলী আবাসিক এলাকার মো.আব্দুল মালেকের ছেলে আবদুল কাদির, শায়েস্তাগঞ্জের শেরপুর গ্রামের কুদ্দুস মিয়ার ছেলে মো. হৃদয় মিয়া।

র‌্যাব-৯ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) নাহিদ হাসান প্রেরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, আটককৃতদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ এবং তাদের ব্যবহৃত সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলো নিবিড় অনুসন্ধানে বেরিয়ে আসে তাদের অপরাধের ভংয়ঙ্কর ও চাঞ্চল্যকর অনেক তথ্য।

এই চক্রটি দীর্ঘদিন ধরে এসএসসি-এইচএসসিসহ পাবলিক পরীক্ষার ফল পরিবর্তন করে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে অসংখ্য ছাত্রছাত্রীর কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছিল।

তাদের ফেসবুক আইডিতে পাওয়া যায় অনেক পরীক্ষার্থীর সার্টিফিকেট ও মার্কশিটের কপি। অভিযুক্তদের সঙ্গে থাকা মোবাইল ফোনের মাধ্যমে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে লগইন করে দেখা যায় এ সব তথ্য জানা যায়।

এছাড়াও চক্রটি সিলেটসহ বিভিন্ন জেলায় ফেসবুক আইডি, মেসেঞ্জার, ইমো ও ভাইবারের মাধ্যমে প্রশ্নপত্র নগদ অর্থের বিনিময় আদান-প্রদান করে থাকে।

এমনকি তারা অনলাইনে বিজ্ঞাপন প্রদানের মাধ্যমে ফাঁসকৃত প্রশ্ন এবং প্রশ্নের উত্তর অর্থের বিনিময়ে বিক্রয় করে থাকে। বিভিন্ন ব্যক্তির কাছে বিক্রি করা প্রশ্নপত্রের হুবহু কপিসহ প্রশ্নফাঁসের নমুনাও সেখানে পাওয়া যায়।

তারা কৌশলে বিভিন্ন ব্যক্তির ফেসবুক ও ওয়েবসাইট হ্যাক করে বিভিন্ন ধরনের সামাজিক অপরাধ করে আসছিল।

গ্রেফতারকৃত শওকত বিভিন্ন অবৈধ ওয়েবসাইট ব্যবহার করে সাধারণ লোকের ফেসবুক আইডি পাসওয়ার্ড হ্যাক করে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আরও জানা যায়, প্রশ্নফাঁস করার জন্য হ্যাককৃত আইডিগুলো শওকত নিজেই ব্যবহার করে।

উদ্ধারকৃত আলামতসহ গ্রেফতারকৃত আসামিদের শ্রীমঙ্গল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।