শুক্রবার ২৩শে ফেব্রুয়ারি ২০১৮ সকাল ০৮:২৯:৪২

Print Friendly and PDF

বাবরি মসজিদ মামলায় ধর্ম বাদ


আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

প্রকাশিত : শুক্রবার ৯ই ফেব্রুয়ারি ২০১৮ সকাল ১১:১৮:২৮, আপডেট : শুক্রবার ২৩শে ফেব্রুয়ারি ২০১৮ সকাল ০৮:২৯:৪২,
সংবাদটি পড়া হয়েছে ১২৮ বার

ফাইল ছবি

বাবরি মসজিদ মামলার শুনানিতে জমিসংক্রান্ত বিরোধের প্রসঙ্গ ছাড়া ধর্ম ও রাজনীতি সংশ্লিষ্ট কোনো বিষয় শুনবে না বলে জানিয়েছে ভারতের সুপ্রিমকোর্ট।

বৃহস্পতিবার সুপ্রিমকোর্টের প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্র, বিচারপতি অশোক ভান ও বিচারপতি এস আবদুল নাজিরকে নিয়ে গঠিত আপিল বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

এ সময় সব নথির ইংরেজি অনুবাদ জমা দেয়ার কাজ সম্পূর্ণ না হওয়ায় ১৪ মার্চ পর্যন্ত মামলার শুনানি স্থগিত করা হয়।

এ ছাড়া দুই সপ্তাহের মধ্যে নথিপত্রের ইংরেজি অনুবাদ জমা দেয়ার কাজ সম্পূর্ণ করে জমা দিতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

এদিন আদালত স্পষ্ট জানিয়েছে, এ মামলায় রাজনীতি বা ধর্মসংক্রান্ত কোনো বক্তব্য শোনা হবে না। প্রতিদিন এই মামলার শুনানিতেও সম্মতি দেয়া হয়নি।

বৃহস্পতিবার গুরুত্বপূর্ণ এ মামলার শুনানি শুরু হলে প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ জানায়, শুধুমাত্র একটি বিতর্কিত জমিসংক্রান্ত বিবাদ হিসাবেই মামলাটিকে দেখা হবে। এ মামলার সঙ্গে জড়িয়ে থাকা বহু বছরের পুরানো ইতিহাস ও স্মৃতি আদালতের কাছে তেমন গুরুত্বপূর্ণ নয়। ধর্ম বা রাজনীতির ভিত্তিতে কোনও বিষয় শোনা হবে না।

প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্র বলেন, দেশের গরিব মানুষ বিচারের জন্য অপেক্ষা করছেন। এই মামলার কয়েক ঘণ্টা সময়ের মধ্যে ৭০০টি অন্য মামলার নিষ্পত্তি করা সম্ভব।

জানা গেছে, বাবরি মসজিদ মামলার শুনানিকালে এক আইনজীবী বলেন, এর সঙ্গে কোটি কোটি হিন্দুর ভাবাবেগ জড়িত। তখন আদালত সাফ জানান, এ ধরনের কোনো বিষয় নিয়ে ভাবা হচ্ছে না। আবেদন, পালটা আবেদন সবই আছে। কিন্তু এই মামলা শুধুমাত্র বিতর্কিত ভূমি-বিবাদ হিসেবেই দেখা হবে।

মুসলমানদের পক্ষে এই মামলা লড়ছেন আইনজীবী রাজীব ধাওয়ান। তার দাবি ছিল, প্রতিদিন এই মামলার শুনানি চলুক।

জবাবে আদালত জানায়, মামলার গুরুত্ব আদালত জানে। কিন্তু এই দেশের বহু গরিব মানুষ বিচার প্রার্থনা করছেন। সুতরাং এই মামলায় প্রতিদিন সময় দিয়ে তাদের ন্যায়বিচার থেকে বঞ্চিত করতে চান না আদালত।