বৃহঃস্পতিবার ২৩শে নভেম্বর ২০১৭ সকাল ০৭:৫৮:৪৪

Print Friendly and PDF

খবর জি নিউজেরভারতে গো-রক্ষার নামে ফের মুসলমানদের গরু ছিনতাই


আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

প্রকাশিত : মঙ্গলবার ১৭ই অক্টোবর ২০১৭ সকাল ১০:০১:২২, আপডেট : বৃহঃস্পতিবার ২৩শে নভেম্বর ২০১৭ সকাল ০৭:৫৮:৪৪,
সংবাদটি পড়া হয়েছে ১৮৪ বার

প্রতীকী ছবি

সময়নিউজ ডট নেট:
ঢাকা: ভারতে অনেক দিন ধরেই গো-রক্ষা ইস্যুতে বিভিন্ন ঘটনা ঘটছে। গো-রক্ষার নামে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে মানুষকেও

তবে কিছুদিন যাবৎ শান্ত ছিল এই ইস্যুটি। কিন্তু ফের এই গো-রক্ষার নামে ভারতের রাজস্থানে মুসলমানদের গরু ছিনতাই করে নিচ্ছে গো-রক্ষা কমিটির সদস্যরা।

জানা গেছে, রাজ্যের আলওয়ার জেলার মেও গ্রামে কথিত গো-রক্ষকরা এরই মধ্যে মুসলিম পরিবারের কাছ থেকে ৫১টি গরু ছিনতাই করে নিয়েছে। তাদের এ কাজে পুলিশ সহযোগিতা করছে বলে অভিযোগ করেছে মুসলিমরা।

স্থানীয়দের অভিযোগ, গো-রক্ষকদের কথামতো পুলিশ সদস্যরা ওই গরুগুলো মুসলিম পরিবারের কাছ থেকে নিয়ে ক্ষমতাসীন ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) নেতা কিষান গুপ্তর গোশালায় রেখে আসেন।

তবে পুলিশ সেই অভিযোগ অস্বীকার করে জানিয়েছে, গো-রক্ষকরাই ওই মুসলিম পরিবারটির কাছ থেকে গরুগুলো নিয়ে গোশালায় দিয়েছে।

মুসলিম পরিবারটির গৃহকর্তা সুব্বা খান জানান, গত ৩ অক্টোবর তিনি গরুগুলোকে মাঠে চরাতে দেন। কিন্তু এরপর দিন গড়িয়ে রাত হলেও গরুগুলো আর বাড়ি ফেরেনি। তার অভিযোগ, গ্রামের মানুষই পুলিশের সাহায্যে গরুগুলো গোশালায় দিয়ে গেছে

সুব্বা খানের ভাষ্য, ১০ দিন ধরে তিনি গরুগুলো গ্রামে ফিরিয়ে আনতে পুলিশের কাছে গেছেন। কিন্তু পুলিশ তার কথায় কর্ণপাতই করছে না।

কিষান গুপ্তের ভাষ্য, সুব্বা খান একজন গরু পাচারকারী। তার কাছ থেকে গোশালায় এনে গরুগুলো জমা দেয়ায় তিনি পুলিশকে ধন্যবাদ জানান।

এর আগে রাজস্থানের আলওয়ার জেলাতেই চলতি বছরের শুরুতে গরু চুরির অভিযোগে পেহলু খান নামের এক ব্যক্তিকে গোরক্ষকরা পিটিয়ে হত্যা করে।