শুক্রবার ১৫ই নভেম্বর ২০১৯ রাত ০৩:৩৮:৪০

Print

গণপূর্তের ৩৩ প্রকৌশলীকে দুদকে তলব


নিজস্ব প্রতিবেদক:

প্রকাশিত : সোমবার ৪ঠা নভেম্বর ২০১৯ সকাল ০৯:১৫:৪৫, আপডেট : শুক্রবার ১৫ই নভেম্বর ২০১৯ রাত ০৩:৩৮:৪০,
সংবাদটি পড়া হয়েছে ১৯২ বার

ফাইল ছবি

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পে দুর্নীতির অভিযোগ অনুসন্ধানে প্রকল্প পরিচালকসহ ৩৩ প্রকৌশলীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। গতকাল দুদকের অনুসন্ধান কর্মকর্তা উপপরিচালক মো. নাসির উদ্দিন এ সংক্রান্ত নোটিশ পাঠান। এ প্রকৌশলীদের আগামী ৬, ৭, ১১, ১২ ও ১৩ নভেম্বর দুদকের প্রধান কার্যালয়ে হাজির থাকতে বলা হয়েছে।

দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য্য জানান, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পে বালিশকা-সহ দুর্নীতির বিভিন্ন অভিযোগের বিষয় গত ১৭ অক্টোবর নাসিরউদ্দিনকে প্রধান করে তিন সদস্যের একটি অনুসন্ধান দল গঠন করে দুদক। দলের অপর দুই সদস্য হলেন, দুদকের সহকারী পরিচালক মো. আতিকুর রহমান ও উপসহকারী পরিচালক মোহাম্মদ শাহজাহান মিরাজ। অনুসন্ধানের অংশ হিসেবে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের সচিব এবং গণপূর্তের প্রধান প্রকৌশলী বরাবর পাঠানো দুটি চিঠিতে এ তলব করা হয়েছে।

তলবকারীদের মধ্যে ৬ নভেম্বর হাজির থাকবেন গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মাসুদুল আলম, পাবনা গণপূর্ত বিভাগের উপবিভাগীয় প্রকৌশলী মো. তারেক, তাহাজ্জুদ হোসেন ও মো. মোস্তফা কামাল, উপসহকারী প্রকৌশলী মো. কামারুজ্জামান, মো. আবু সাঈদ ও মো. ফজলে হক।

আগামী ৭ নভেম্বর তলব করা হয়েছে রাজশাহী গণপূর্ত সার্কেলের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী একেএম জিল্লুর রহমান, পাবনা গণপূর্ত বিভাগের উপবিভাগীয় প্রকৌশলী আহমেদ সাজ্জাদ খান, পাবনা গণপূর্ত বিভাগের সহকারী প্রকৌশলী আমিনুল ইসলাম, উপসহকারী প্রকৌশল মো. শফিকুল ইসলাম, সুমন কুমার নন্দি, মো. শাহীন উদ্দিন ও মো. জাহিদুল করিমকে।

আগামী ১১ নভেম্বর হাজির থাকবেন রাজশাহী গণপূর্ত অঞ্চলের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মো. নজিবুর রহমান, সাবেক অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মো. শফিকুর রহমান, পাবনা গণপূর্ত সার্কেলের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী দেবাশীষ চন্দ্র সাহা, সহকারী প্রকৌশলী রাকিবুল ইসলাম, মো. রওশন আলী, রাজশাহী সার্কেলের উপসহকারী প্রকৌশলী মো. আহসানুল হক ও খোরশেদা ইয়াছরিবা।

আগামী ১২ নভেম্বর তলব করা হয়েছে রাজশাহী গণপূর্ত অঞ্চলের নির্বাহী প্রকৌশলী আশরাফুল ইসলাম, সাবেক নির্বাহী প্রকৌশলী মো. নুরুল ইসলাম, উপসহকারী প্রকৌশলী মো. আলমগীর হোসেন, শাহনাজ আক্তার, পাবনা গণপূর্ত বিভাগের উপসহকারী প্রকৌশলী মো. শফিউজ্জামান ও মো. রওশন আলী এবং রাজশাহী গণপূর্ত অঞ্চলের সাবেক সহকারী প্রকৌশলী মকলেছুর রহমানকে।

আগামী ১৩ নভেম্বর হাজির থাকবেন রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক মো. শৌকত আকবর, উপপ্রকল্প পরিচালক মো. হাসিনুর রহমান, উপসহকারী প্রকৌশলী মো. মাহবুব রহমান, মো. মেহেদী হাসান এবং পাবনা গণপূর্ত বিভাগের মো. রফিকুজ্জামান।

উল্লেখ্য, রূপপুর প্রকল্পের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বসবাসের জন্য নির্মাণাধীন গ্রিনসিটি আবাসন প্রকল্পে অস্বাভাবিক ব্যয় করা হয়। গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের দুই কমিটির তদন্তে ৬২ কোটি ২০ লাখ ৮৯ হাজার টাকার অনিয়মের কথা উঠে আসে এবং ৩৪ প্রকৌশলীকে দায়ী করা হয়।