মঙ্গলবার ২২শে অক্টোবর ২০১৯ সকাল ১১:৪৫:৩০

Print

ক্লান্তিভাব দূর করে ডাবের পানি


লাইফস্টাইল ডেস্ক:

প্রকাশিত : মঙ্গলবার ২৮শে মে ২০১৯ সকাল ১০:০২:৪৬, আপডেট : মঙ্গলবার ২২শে অক্টোবর ২০১৯ সকাল ১১:৪৫:৩০,
সংবাদটি পড়া হয়েছে ৬০৩ বার

তীব্র তাপদাহের মধ্যেই এবার রমজান মাস চলছে। সেহরি ও ইফতারে সময়ের ব্যবধানটা প্রায় ১৬ ঘণ্টার হওয়ায় রোজাদারদের পানিশূন্যতার ঝুঁকি থাকছে। এ কারণে রোজার শুরু থেকেই ইফতার ও সেহরিতে পর্যাপ্ত পানি পানের পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। অনেকে আবার তৃষ্ণা মেটাতে পানির সঙ্গে সঙ্গে বাজারজাত অনেক কোমল পানীয়ও পান করেন। বিশেষজ্ঞদের মতে, ঠাণ্ডা পানীয় তেষ্টা মেটায় বটে, কিন্তু বেশি পরিমাণে পান করলে তা শরীরের জন্য মারাত্বক বিপদ ডেকে আনতে পারে। এ কারণে বিশেষজ্ঞরা রোজাদারদের ইফতারে ডাবের পানি পানের পরামর্শ দিয়েছেন। তাদের মতে, এটি পান করলে তৃষ্ণার মেটার পাশাপাশি শরীরও ভাল থাকবে।

প্রচণ্ড গরমে এবং ইফতারিতে ডাবের পানি খেলে যেসব উপকারিতা পাওয়া যায়-

১. ডাবের পানিতে থাকা কার্বোহাইড্রেড শরীরে শক্তির ঘাটতি পূরণ করে। সেই সঙ্গে ক্লান্তি ভাব দূর করে শরীরকে চাঙ্গা করে তোলে।

২. প্রচণ্ড গরমে শরীরে ঘামের সঙ্গে অনেক পানি বেরিয়ে যায়। শরীরে তখন পানির ঘাটতি দেখা দেয়। এই সমস্যা থেকে বাঁচাতে ডাবের পানি অত্যন্ত উপকারী।

৩. ডাবের পানিতে যেহেতু চিনি খুব কম থাকে, তাই এটি সহজে ওজন কমাতে সাহায্য করে। ফাইবারে ভরপুর ডাবের পানি খাবার দ্রুত হজম করতেও ভূমিকা রাখে।

৪. ডাবের পানি রক্তে শর্করার পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে। এ কারণে গরমে ডায়াবেটিস রোগীদের সুস্থ রাখতে ডাবের পানির জুড়ি নেই।

৫. তীব্র দাবদাহে রক্তচাপ বেড়ে যেতে পারে।আবার অতিরিক্ত ঘামের সঙ্গে অনেকটা পানি বেরিয়ে যাওয়ায় রক্তচাপ অস্বাভাবিকভাবে কমে যেতে পারে। ডাবের পানিতে থাকা ভিটামিন সি, ম্যাগনেসিয়াম এবং পটাশিয়াম রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে।