রবিবার ২১শে এপ্রিল ২০১৯ রাত ০২:১৪:৫০

Print Friendly and PDF

চাকরির সম্ভাবনা কমায়...


লাইফস্টাইল ডেস্ক:

প্রকাশিত : সোমবার ১৫ই অক্টোবর ২০১৮ বিকাল ০৫:১৪:৩৬, আপডেট : রবিবার ২১শে এপ্রিল ২০১৯ রাত ০২:১৪:৫০,
সংবাদটি পড়া হয়েছে ২২৩ বার

চাকরির বাজারে নামার আগে কয়েকটি বিষয় জেনে নেওয়া উচিত। মেধা ও যোগ্যতায় আপনি কারো থেকে পিছিয়ে নেই। কিন্তু কিছু অনাকাঙ্ক্ষিত কারণে বারবার হোঁচট খেতে হতে পারে। হয়তো বুঝতেই পারবেন না কেন এমনটা হচ্ছে। আপাতদৃষ্টিতে সাধারণ কারণ মনে হলেও এগুলোই প্রার্থী হিসেবে বাদ পড়ার নেপথ্যে থাকে—

দুর্বল জীবনবৃত্তান্ত

অতি ব্যস্ত হয়ে জীবনবৃত্তান্ত তৈরি করবেন না। এতে চাকরিদাতাদের কাছে স্পষ্ট হবে যে আপনি রিজ্যুমি মনোযোগ দিয়ে বানাননি। একটু খেয়াল করলে অনেক দৃষ্টিকটু বিষয় নজরে আসবে। গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট থাকবে না, অপ্রাসঙ্গিক কথা চলে আসবে।

অপরিপূর্ণ আবেদন

প্রার্থিতা ঘোষণার জন্য একটা আবেদন ফরম পূরণ করতে হতেই পারে। সেখানেও আপনার যোগ্যতা পরিমাপ হবে। বাজে হাতের লেখা, ভুল তথ্য কেটেকুটে ঠিক করা আর পুরো ফরম পূরণ না করলে আপনার সুযোগ নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

রেফারেন্সের ক্ষেত্রে

জীবনবৃত্তান্ত কিংবা আবেদনপত্রে অনেক সময় রেফারেন্স চাওয়া হয়। অর্থাৎ আপনাকে ভালো করে চেনে বা জানে এমন কোনো ব্যক্তির মতামত জানতে চাওয়া হয়। এখন কথা হলো, মায়ের চেয়ে কে বেশি আপনাকে চেনে? তাই বলে নিজের আত্মীয়-স্বজন বা পরিবারের কাউকে রেফারেন্স দিলে হবে না।

পোশাক-পরিচ্ছদ

চাকরির সাক্ষাৎকারে গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় হলো পোশাক। প্রতিষ্ঠান এবং যে পদের জন্য আবেদন করেছেন, তার বৈশিষ্ট্য বুঝে আপনাকে পোশাক বাছাই করতে হবে। এমন কিছু পরবেন না, যাতে রুচির অভাব ফুটে ওঠে।

ভাবভঙ্গি

এলোমেলো, অস্বাভাবিক, আগ্রাসী, দাম্ভিক ও অভদ্র আচরণ করেছেন তো আপনি বাতিল বলে গণ্য হবেন। এসব আচরণের গ্রহণযোগ্যতা কোথাও নেই। কাজেই বিনয়ী ও স্মার্ট হতে হবে। তা না হলে চাকরি মেলার সম্ভাবনা নেই।

টাইমস জবস অবলম্বনে সাকিব সিকান্দার