বুধবার ১৯শে ফেব্রুয়ারি ২০২০ সকাল ১১:০৭:২১

Print

ইভিএমের ফাঁক কোথায়, জানালেন মান্না


নিজস্ব প্রতিবেদক:

প্রকাশিত : শনিবার ২৫শে জানুয়ারী ২০২০ সকাল ১১:২৭:০২, আপডেট : বুধবার ১৯শে ফেব্রুয়ারি ২০২০ সকাল ১১:০৭:২১,
সংবাদটি পড়া হয়েছে ১৭০ বার

নির্বাচনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহারে বরাবরই বিরোধিতা করে আসছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। এবার ইভিএম মেশিনে ভোট গ্রহণে কারচুপি সামনে এনেছেন ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম শীর্ষ নেতা ও নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না।

শুক্রবার রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবে যুব জাগপা আয়োজিত আলোচনাসভায় তিনি ইভিএমের ফাঁক তুলে ধরেন।

ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন ব্যবহারের বিরোধিতা করে মান্না বলেন, প্রথম যখন ইভিএম চালুর কথা বলেছে তখনও এর বিরোধিতা করেছি, এখনও করছি। এ মেশিন তো মানুষই বানায়। মানুষ বানায় তার উপকারের জন্য। না বোঝার কী আছে। আমরা রুমে একটা ফ্যান লাগাই বাতাস পাওয়ার জন্য, আরাম পাওয়ার জন্য, তেমনই ইভিএম যেমন করে বানিয়েছে সেভাবে আমার কমান্ড শুনবে। আপনি যতই ধানের শীষে ভোট দেন না কেন, আমি যদি ভেতরে কমান্ড দিয়ে রাখি যে, তিনটা টিপ দিলে দুটি নৌকায় যাবে আর একটা ধানের শীষে যাবে, আপনার কিছু করার আছে? কোনো প্রমাণ নেই আপনি কোথায় ভোট দিলেন।

ইভিএভের ফাঁক তুলে ধরে তিনি বলেন, ইভিএমে ভোট দিলেন। আপনি কোথায় ভোট দিলেন। আপনার কাছে কোনো প্রমাণ নেই। কোনো মামলাও করতে পারবেন না, প্রতিবাদ করতে পারবেন না। এত বড় জালিয়াতি এ সরকার করছে।

ইভিএমে ভোট চ্যালেঞ্জের সুযোগ নেই জানিয়ে তিনি বলেন, পৃথিবীর অন্যান্য দেশে ইভিএমে ভোট আদায়ের পর সন্দেহ হলে চ্যালেঞ্জ করা যায়। আমাদের এখানে সেই পদ্ধতি নেই।

ইভিএম ব্যবহারে সরকারের ষড়যন্ত্রের কথা তুলে ধরে মান্না বলেন, ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনেও আওয়ামী লীগ জেতার জন্য, ক্ষমতায় থাকার জন্য ভোট ডাকাতি করেছে। এবার ডাকাতি করা যাচ্ছে না। কারণ, দেশের জনগণ জানে, মিডিয়া জানে, সারা বিশ্ব জানে তারা ভোট ডাকাতি করে ক্ষমতায় এসেছে। এবার ডাকাতি করতে পারছে না এ কারণে যে, আরও বড় বদনামের মুখোমুখি হতে হবে এবং তাদের ক্ষমতা ছাড়ার ঝুঁকিটা বাড়তে পারে। এজন্যই এবার মেশিন (ইভিএম) আমদানি করা হয়েছে। এ মেশিন জাদুর মেশিনের মত।