শুক্রবার ২২শে নভেম্বর ২০১৯ সকাল ১০:৫৯:৩৪

Print

যুগান্তর প্রতিনিধির বিরুদ্ধে মামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন


জেলা সংবাদদাতা/চাঁপাইনবাবগঞ্জ:

প্রকাশিত : সোমবার ২৬শে আগস্ট ২০১৯ সকাল ০৯:১১:২৮, আপডেট : শুক্রবার ২২শে নভেম্বর ২০১৯ সকাল ১০:৫৯:৩৪,
সংবাদটি পড়া হয়েছে ২৭৪ বার

ছবি : সংগৃহীত

যমুনা টেলিভিশনের স্টাফ রিপোর্টার ও যুগান্তরের জেলা প্রতিনিধি মনোয়ার হোসেন জুয়েলের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মানহানি মামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় কর্মরত সাংবাদিক ও সুশীল সমাজের নেতারা।

রোববার বেলা ১১টায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে এই মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রেস ক্লাবের সভাপতি জাফরুল আলমের সভাপত্বিত্বে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে জেলা ও উপজেলার সাংবাদিকসহ বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক সংগঠনের নেতাকর্মীরা অংশ নেন।

চাঁপাইনবাবগঞ্জের সাংবাদিক জুয়েলের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত হয়রানিমূলক মিথ্যা মামলার তীব্র প্রতিবাদ জানান তারা।

সাপ্তাহিক সোনামসজিদ পত্রিকার সম্পাদক জোনাব আলীর সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সভাপতি আলহাজ মাহবুবুল আলম, সাধারণ সম্পাদক শহিদুল হুদা অলক, সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও দৈনিক চাঁপাই চিত্রের সম্পাদক কামাল উদ্দীন, জেলা প্রেস ক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও দৈনিক চাঁপাই দর্পণের সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম রঞ্জু, নাচোল উপজেলা প্রেস ক্লাবের সভাপতি আব্দুস সাত্তার, গোমস্তাপুর উপজেলা প্রেস ক্লাবের আতিকুল ইসলাম, ভোলাহাট প্রেস ক্লাবের গোলাম কবির ও প্রকাশিত সংবাদটির বিষয়ে বিস্তারিত তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন সাংবাদিক মনোয়ার হোসেন জুয়েল।

এ ছাড়াও মানববন্ধনে একাত্মতা ঘোষণা করে বক্তব্য দেন সুশাসনের জন্য নাগরিক- সুজন, বাংলাদেশ জাসদ, জাসদ ছাত্রলীগ, বিভিন্ন সামাজিক ও রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীরা।

সাংবাদিক জুয়েলের বিরুদ্ধে করা মানহানি মামলার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে বক্তারা বলেন, মানহানি মামলায় সংক্ষুব্ধ ব্যক্তি এবং বিশেষ ক্ষেত্রে ক্ষমতাপ্রাপ্ত প্রতিনিধি ছাড়া মামলা করার সুযোগ নেই। কিন্তু ডা. শিমুল এমপির মানহানি হয়েছে এমন অভিযোগ এনে মামলা করলেন তার ভগ্নিপতি। মানববন্ধনে বক্তারা ভাড়াটিয়া দিয়ে মিথ্যা মামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান। হামলা-মামলায় সাংবাদিকতায় প্রতিবন্ধকতা তৈরি করা সম্ভব নয় উল্লেখ করে আগামীতে দুর্নীতির বিরুদ্ধে আরও বেশি সোচ্চার হয়ে পেশাদারিত্বের সঙ্গে সাংবাদিকতা করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। সাংবাদিক মনোয়ার হোসেন জুয়েল চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১ আসনের এমপি ডা. সামিল উদ্দীন আহমেদ শিমুলকে উদ্দেশ্য করে বলেন, মামলা করার তার অধিকার রয়েছে। আমি সেই মামলা আইনগতভাবে মোকাবেলা করব। দীর্ঘ সময় অনুসন্ধান করে সংবাদটির তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে। প্রকাশিত সংবাদটির স্বপক্ষে আমার কাছে যে তথ্য-প্রমাণ রয়েছে তা আদালতে তুলে ধরা হবে।

তিনি বলেন, সোনামসজিদ স্থলবন্দরে যারা লুটপাট করেছে, দেশের ক্ষতি করছে এতে তাদের মানহানি ঘটেনি, কিন্তু তাদের কূকীর্তির কথা গণমাধ্যমে তুলে ধরায় নাকি তাদের মানহানি ঘটেছে, সত্যি এটি একটি বিচিত্র বিষয়।

তিনি আরও বলেন, জীবনের শেষ রক্তবিন্দু থাকা পর্যন্ত সব অনিয়মের বিরুদ্ধে তার কলম চলবে।

উল্লেখ্য, গত ১৫ আগস্ট সোনামসজিদ স্থলবন্দরের ৩০০ কোটি টাকার রাজস্ব হরিলুটের অভিযোগে চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১ আসনের সাংসদ ডা. সামিল উদ্দিন আহম্মেদ শিমুল ও তার ভাইয়ের বিরুদ্ধে যমুনা টেলিভিশনে একটি অনুসন্ধানী রিপোর্ট প্রচার করা হয়।

এর পর গত ১৯ আগস্ট সাংসদ শিমুলের ভগ্নিপতি অ্যাডভোকেট আনোয়ার সাদাত অতনু বিশ্বাস বাদী হয়ে একটি মানহানির মামলা দায়ের করেন।