শুক্রবার ২২শে নভেম্বর ২০১৯ সকাল ১১:২৭:৪৪

Print

সাংবাদিক বহিষ্কারের ঘটনায় শাবি প্রেসক্লাবের প্রতিবাদ


শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি :

প্রকাশিত : শনিবার ১৪ই সেপ্টেম্বর ২০১৯ বিকাল ০৩:৫১:৫১, আপডেট : শুক্রবার ২২শে নভেম্বর ২০১৯ সকাল ১১:২৭:৪৪,
সংবাদটি পড়া হয়েছে ১৩৬ বার

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বশেমুরবিপ্রবি) কর্মরত সাংবাদিক ফাতেমা তুজ জিনিয়াকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাময়িক বহিষ্কারের ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছে শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয় প্রেসক্লাব।

আজ শনিবার শাবি প্রেসক্লাবের সভাপতি জিয়াউল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক জুনেদ আহমদ এক যৌথ বিবৃতিতে এই নিন্দা প্রতিবাদ জানান। এতে বলা হয়, কথিত অভিযোগে জিনিয়াকে কারণ দর্শানোর নোটিশ ও সিন্ডিকেটের সভা ছাড়াই বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন পরিপন্থী।

বিবৃতিতে নেতারা বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে মুক্তবুদ্ধি ও মুক্তচিন্তা চর্চার সর্বোচ্চ অঙ্গন। রাষ্ট্রের অভ্যন্তরে স্বতন্ত্র রাষ্ট্র খ্যাত ‘বিশ্ববিদ্যালয়’ হবে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার রূপকার; কিন্তু বর্তমানে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে অগণতান্ত্রিক ও স্বৈরচারী শাসন বিশ্ববিদ্যালয়কে তার স্বীয় চরিত্র থেকে বিচ্যুত করছে। কথিত অভিযোগে কারণ দর্শানোর নোটিশ ও সিন্ডিকেটের সভা ছাড়াই বশেমুরবিপ্রবির সাংবাদিক ও শিক্ষার্থী ফাতেমা-তুজ-জিনিয়াকে বহিষ্কার স্বৈরশাসনের অশনিসংকেত বহন করে।

উল্লেখ্য, গত ২২ আগস্ট প্রতিবেদন তৈরীর জন্য উপাচার্যের বক্তব্য নিতে তার কার্যালয়ে যান ‘ডেইলী সান’ পত্রিকার বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি ফাতেমা তুজ জিনিয়া। এসময় উপাচার্য তাকে এর আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেয়া একটি স্ট্যাটাস ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান কাজ কি হওয়া উচিত? কারণ জানতে চান। ব্যাখ্যা মনঃপুত না হওয়ায় উপাচার্য তাকে গালিগালাজ ও হুমকি প্রদান করেন। এরপর গত ১১ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার স্বাক্ষরিত এক আদেশে ফাতেমা তুজ জিনিয়াকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়।