বৃহঃস্পতিবার ২৭শে জুন ২০১৯ দুপুর ০২:১১:২৯

Print Friendly and PDF

নিহত রাজীবের ক্ষতিপূরণের রায় ২০ জুন


আদালত প্রতিবেদক:

প্রকাশিত : বৃহঃস্পতিবার ২৩শে মে ২০১৯ দুপুর ০২:২৪:২৯, আপডেট : বৃহঃস্পতিবার ২৭শে জুন ২০১৯ দুপুর ০২:১১:২৯,
সংবাদটি পড়া হয়েছে ২৬২ বার

রাজধানীতে দুই বাসের চিপায় হাত হারানো তিতুমীর কলেজছাত্র রাজীব হোসেনের মৃত্যুতে কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়ে করা রিটের রায় পিছিয়েছে। আদালত আগামী ২০ জুন রায়ের নতুন দিন ধার্য করেছেন।

বিচারপতি জেবিএম হাসান ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলমের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ বৃহস্পতিবার নতুন এ দিন ধার্য করেন।

আজ আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আবেদনকারী আইনজীবী রুহুল কুদ্দুস। বিআরটিসির পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মোহাম্মদ রাফিউল ইসলাম। আর রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মোহাতার হোসেন।

এর আগে ক্ষতিপূরণ প্রশ্নে রুলসহ কয়েকটি বিষয়ে রুলের শুনানি শেষে ১৯ মে হাইকোর্ট ২৩ মে রায়ের জন্য দিন ধার্য করেছিলেন। এর ধারাবাহিকতায় আজ বিষয়টি রায়ের জন্য কার্যতালিকায় ওঠে।

কোনো ব্যক্তি দুর্ঘটনায় আহত বা নিহত হলে সংশ্লিষ্ট যানের ইনস্যুরেন্সকারী কোম্পানি কীভাবে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তিকে ক্ষতিপূরণের ক্ষেত্রে ভূমিকা রাখতে পারে, বিষয়টি নিয়ে আদালতে শুনানি হয়। ইনস্যুরেন্সসংক্রান্ত এ বিষয় সামনে আসার প্রেক্ষাপটে আদালত শুনানি নিয়ে রায়ের ওই দিন ধার্য করেন।

প্রসঙ্গত গত বছরের ৩ এপ্রিল রাজধানীর কারওয়ানবাজারে দুই বাসের রেষারেষিতে চিপায় পড়ে এক হাত হারান তিতুমীর কলেজের ছাত্র রাজীব হোসেন। চিকিৎসাধীন ওই বছরের ১৬ এপ্রিল তার মৃত্যু হয়। পরিপ্রেক্ষিতে কোটি টাকা ক্ষতিপূরণের নির্দেশনা চেয়ে রিট করেন আইনজীবী রুহুল কুদ্দুস।

হাইকোর্ট এক কোটি টাকা ক্ষতিপূরণের রুল জারিসহ রাজীবের চিকিৎসার খরচ দুই বাস মালিক বিআরটিসি ও স্বজন পরিবহনকে বহনের নির্দেশ দেন।

এদিকে বাসমালিকদের আপিলের পর গত বছরের ২২ মে প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বে আপিল বেঞ্চ ওই ঘটনায় দুই বাস কর্তৃপক্ষের মধ্যে কারা দায়ী ও ক্ষতিপূরণ নিরূপণ করতে একটি ‘স্বাধীন কমিটি’ গঠনে হাইকোর্টকে নির্দেশ দেন।