শুক্রবার ১৫ই নভেম্বর ২০১৯ ভোর ০৪:০৭:৪৮

Print

হাইকোর্টে জামিন নিতে এসে যুবদল নেতা টুকুর মৃত্যু


জেলা সংবাদদাতা/মানিকগঞ্জ:

প্রকাশিত : সোমবার ৪ঠা নভেম্বর ২০১৯ সকাল ০৯:০৩:৪২, আপডেট : শুক্রবার ১৫ই নভেম্বর ২০১৯ ভোর ০৪:০৭:৪৮,
সংবাদটি পড়া হয়েছে ২১৫ বার

কাজী রায়হান উদ্দিন টুকু। ছবি: সংগৃহীত

হাইকোর্টে জামিন নিতে এসে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মানিকগঞ্জ জেলা যুবদলের সভাপতি ও নব্বইয়ের স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনে অন্যতম নেতা কাজী রায়হান উদ্দিন টুকু (৫০) মারা গেছেন।

রোববার সন্ধ্যায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থেকে তার মৃত্যু হয়।

মৃত্যকালে তার বয়স হয়েছিল ৫০ বছর। তিনি স্ত্রী, ৭ বছরের শিশু কন্যা, তিন ভাই ও তিন বোনসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন।

এর আগে দুপুরে মানিকগঞ্জের একটি বিস্ফোরক মামলায় জামিন নিতে দলীয় নেতাকর্মীরাসহ হাইকোর্টে আসেন তিনি। সেখানেই তিনি হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন।

কাজী রায়হান উদ্দিন টুকু জেলা ছাত্রদলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক, সরকারি দেবেন্দ্র কলেজ ছাত্র সংসদের নির্বাচিত জিএস ছিলেন। বর্তমানে তিনি জেলা যুবদলের সভাপতি ছাড়াও জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন।

জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট আজাদ হোসেন খান জানান, দুই দিন আগে মানিকগঞ্জের সাটুরিয়া থানায় কাজী রায়হান উদ্দিন টুকুসহ বিএনপির বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক আইনে একটি গায়েবি মামলা হয়।

মামলায় জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক ও সাটুরিয়া উপজেলা বিএনপি সভাপতি আব্দুল কুদ্দুস মাখনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এ মামলার আগাম জামিন নিতে কাজী রায়হান উদ্দিন টুকুসহ বিএনপির কয়েকজন নেতাকর্মী রোববার সকালে হাইকোর্টে যান।

সেখানে দীর্ঘ কয়েক ঘণ্টা অবস্থানকালে টুকু হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন। এরপর তাকে দ্রুত ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। সন্ধ্যা ৭টার দিকে সেখানে দায়িত্বরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।