শনিবার ২০শে জুলাই ২০১৯ সকাল ০৯:৪৬:২৯

Print Friendly and PDF

দেড় বছর ধরে ডাইনিংয়ে বসবাস জাবির এই ছাত্রীদের


জাবি প্রতিনিধি:

প্রকাশিত : মঙ্গলবার ৯ই জুলাই ২০১৯ বিকাল ০৫:৫২:১৫, আপডেট : শনিবার ২০শে জুলাই ২০১৯ সকাল ০৯:৪৬:২৯,
সংবাদটি পড়া হয়েছে ১৪১ বার

মানববন্ধনে অংশ নেওয়া ছাত্রীরা।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলের দ্বিতীয় বর্ষের (৪৭ ব্যাচ) ছাত্রীরা রুম বরাদ্দ না দেওয়ার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছেন। ছাত্রীদের প্রতিবাদের মুখে হল প্রভোস্ট আগামী ১ মাসের মধ্যে রুম দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন।

মঙ্গলবার সকাল ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের পুরাতন প্রশাসনিক ভবনের সামনে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে ছাত্রীরা জানান, গত আঠারো মাস ধরে তারা গণরুমে (হলের ডাইনিং) থাকছেন। কিন্তু এখনও তাদের জন্য রুম বরাদ্দ দেওয়া হয়নি। এদিকে হলে অবস্থান করছেন ৪৮তম ব্যাচের ছাত্রীরাও।

মানববন্ধনে আইন ও বিচার বিভাগের ৪৭তম ব্যাচের ছাত্রী আফসিন সুলতানা এ্যামি বলেন, ‘আমাদের বার বার মিথ্যা আশ্বাস দেওয়া হয়েছে। বলা হয়েছিল ঈদের পর সিট দেওয়া হবে। কিন্তু এখন পর্যন্ত কোন উদ্যোগ নেওয়া হয়নি। আমাদের একজনও সিট পায়নি। আমরা প্রভোস্ট ও ভিসি বরাবর আবেদন দিয়েছিলাম, কিন্তু কোনো জবাব পাইনি।’

এ সময় নৃবিজ্ঞান বিভাগের খাদিজাতুল কোবরা সেপু বলেন, ‘আমরা হলে একটি সিট চাই। প্রায় ১৮ মাস ধরে হলের গণরুমে আছি। একটা ছোট গণরুমে ১১৪ জন একসঙ্গে থাকা আর সম্ভব হচ্ছে না। আমাদের পড়াশোনার ক্ষতি হচ্ছে এবং রোগ ব্যাধিতে আক্রান্ত হচ্ছি।’

পরে শিক্ষার্থীরা হলপ্রভোস্টের সঙ্গে কথা বলতে চাইলে অধ্যাপক মো. মুজিবুর রহমান সকলকে নিয়ে হলের মধ্যে আলোচনা করতে চান। কিন্তু শিক্ষার্থীরা তা প্রত্যাখান করে হলে সিট বরাদ্দের ব্যাপারে লিখিত আশ্বাসের জোড় দাবি জানান।

এ সময় ছাত্রীরা তার কাছে ৬২৮ সিটের বিপরীতে ৯৯০ জনের বরাদ্দ কেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘হল এলটের সময় আমি দায়িত্বে ছিলাম না। তবে এটা আবাসন সমস্যার কারণেই দেওয়া হয়েছে। তোমাদের সিটের ব্যাপারে আমরা খুব দ্রুতই ব্যবস্থা নেব।’

পরবর্তীতে ছাত্রীদের অব্যাহত দাবির মুখে হল প্রভোস্ট এক মাসের মধ্যে আবাসন সমস্যার সমাধান করবেন বলে লিখিত দিতে বাধ্য হন। পরে শিক্ষর্থীরা মানববন্ধন কর্মসূচি বাতিল করেন।