মঙ্গলবার ২০শে আগস্ট ২০১৯ বিকাল ০৪:১১:১৪

Print Friendly and PDF

অবৈধদের দেশে ফেরার সুযোগ দিলো মালয়েশিয়া


Hriddhan Laiju

প্রকাশিত : বৃহঃস্পতিবার ১৮ই জুলাই ২০১৯ সন্ধ্যা ০৬:২১:৩৬, আপডেট : মঙ্গলবার ২০শে আগস্ট ২০১৯ বিকাল ০৪:১১:১৪,
সংবাদটি পড়া হয়েছে ৮৬ বার

সংগৃহীত ছবি

অবৈধ প্রবাসীদের ধরতে ব্যাপক ধরপাকড় চালিয়ে যাচ্ছে মালয়েশিয়ার অভিবাসন বিভাগ। চলমান এই অভিযানের মধ্যে অবৈধদের নিজ দেশে ফেরার সুবর্ণ সুযোগ দিলেন মালয়েশিয়া সরকার।

‘ব্যাক ফর গুড’ প্রোগ্রামের মাধ্যমে পহেলা আগস্ট থেকে ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে এসব অবৈধ প্রবাসীরা নিজ নিজ দেশে ফেরার সুযোগ পাবেন। দেশে ফিরে যাওয়ার জন্য মালয়েশিয়ান ইমিগ্রেশনকে ৭০০ রিঙ্গিত পরিশোধ করতে হবে। সঙ্গে ট্রাভেল ডকুমেন্টস হিসেবে পাসপোর্ট বা সংশ্লিষ্ট দূতাবাস কর্তৃক কাগজপত্র এবং বিমান টিকিট নিতে হবে।

মালয়েশিয়ার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তান শ্রী মহিউদ্দিন ইয়াসিন স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

অবৈধ প্রবাসীদের নির্বিঘ্নে মালয়েশিয়া ত্যাগ করার জন্য দেশটির ইমিগ্রেশন বিভাগ ৮০টি কাউন্টারের মাধ্যমে সেবা প্রদান করবে বলে জানা গেছে। এ কাজে সহায়তার জন্য রয়্যাল মালয়েশিয়ান পুলিশও কাজ করবে।

মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশ হাইকমিশনের শ্রম শাখার সচিব মো. হেদায়েতুল মন্ডল বলেন, ‘ইমিগ্রেশন আইনের ধারা ৬(১) (সি) অনুযায়ী ভ্যালিড পাস (ভিসা) ছাড়া কোনো ব্যক্তি মালয়েশিয়ায় থাকতে পারবেন না। অর্থাৎ ভিসা ছাড়াই কেউ মালয়েশিয়ায় প্রবেশ করে থাকলে তিনি অনুপ্রবেশকারী হিসেবে চিহ্নিত হবেন।’

দেশে ফিরে যাওয়ার সুযোগের বিষয়ে তিনি বলেন,‘কারো ভিসার মেয়াদ শেষ হওয়ার পরেও যদি মালয়েশিয়া অবস্থান করেন অর্থাৎ ‘‘ওভার স্টে’’ করে, এছাড়া কেউ মালয়েশিয়ায় ভিসা ছাড়া প্রবেশ করলে অথবা ভিসা নিয়ে প্রবেশ করলে এই সুযোগের আওতায় আসবেন।’

তবে এই সুযোগ নিয়ে দেশে ফিরে গেলে তিনি পুনরায় বৈধভাবে মালয়েশিয়ায় প্রবেশ করতে পারবেন কিনা তা নিশ্চিত করতে পারেনি দূতাবাসের এই কর্মকর্তা। একইসঙ্গে এই সুযোগ গ্রহণ করতে অবৈধ লেনদেন না করার জন্য অনুরোধ জানানো হয়।

এর আগে গত বছরও অবৈধ প্রবাসীদের স্পেশাল পাস নিয়ে দেশে ফেরার সুযোগ দিয়েছিল মালয়েশিয়ার অভিবাসন বিভাগ। আত্মসমর্পণের মাধ্যমে স্বেচ্ছায় নিজ দেশে ফিরে যাওয়ার ‘থ্রি প্লাস ওয়ান’ নামে ওই কর্মসূচির মেয়াদ শেষ হয় গত বছরের ৩০ আগস্ট।

এদিকে গত রোববার মালয়েশিয়ার অভিবাসন বিভাগের পরিচালিত অভিযানে ৫২৫ জন অবৈধ প্রবাসীদের আটক করে দেশটির পুলিশ। যার মধ্যে প্রায় তিন শতাধিক বাংলাদেশি রয়েছে। অবৈধ এসব প্রবাসীদের বিষয়ে কী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে তা জানায়নি দেশটির সরকার।