ঢাকা বুধবার, ২৩শে জুন ২০২১, ৯ই আষাঢ় ১৪২৮


ফ্যানের সঙ্গে মেয়ের ঝুলন্ত লাশ


প্রকাশিত:
৭ জুন ২০২১ ১৫:৩২

আপডেট:
৭ জুন ২০২১ ১৫:৪৫

প্রতীকী ছবি

দিনাজপুর শহরে শরীরচর্চার জন্য বাবার কিনে দেয়া রশি দিয়ে গলায় ফাঁস লাগা অবস্থায় ভুমিকা অধিকারী (১৭) নামে এক কিশোরীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সোমবার (০৭ জুন) দুপুরে গুঞ্জাবাড়ী ইস্কন মন্দির এলাকায় বাড়ি থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।

ভুমিকা অধিকারী ওই এলাকার বিবেক চন্দ্র অধিকারীর মেয়ে। তবে তারা স্থানীয় নয়, গত ১৪ দিন আগে পরিবারসহ বিবেক অধিকারী ওই এলাকার পরিতোষ রায়ের বাড়ির নিচ তলা ভাড়া নিয়ে বসবাস করছিলেন। এর আগে তারা শহরের বালুবাড়ী এলাকার একটি বাড়িতে ভাড়া থাকতেন। বিবেক অধিকারী পেশায় একজন স্কুল শিক্ষক। তার মেয়ে ভূমিকা দিনাজপুর সরকারী মহিলা কলেজের উচ্চ মাধ্যমিক শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী ছিলেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, রোববার (০৬ জুন) দিবাগত রাতে খাওয়ার পর প্রতিদিনের মতো তার শোবার ঘরে ঘুমাতে যায়। সোমবার সকালে তাকে বাবা ডাকাডাকি করলেও কোনো রকম সাড়াশব্দ পাচ্ছিলেন না। পরে তার বাবা দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকলে সিলিং ফ্যানের (বৈদ্যুতিক পাখা) সঙ্গে মেয়েকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পান।

শরীরচর্চার জন্য কয়েকদিন আগে ভূমিকাকে তার বাবার একটি রশি (লাফানোর রশি) কিনে দেন। সেই রশি দিয়েই গলায় ফাঁস লাগা অবস্থায় পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, গোপনীয় সমস্যার কারণে ভূমিকাকে চিকিৎসার জন্য দু-তিন বার কলকাতায় নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। সে সমস্যার কারণেই আত্মহত্যা করতে পারেন তিনি।

দিনাজপুর কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোজাফফর হোসেন বলেন, ‘ঘটনাস্থল থেকে আমরা একটি চিঠি ও মোবাইলসহ কিছু ব্যবহৃত উপকরণ উদ্ধার করেছি। মরদেহের ময়নাতদন্তের জন্য দিনাজপুর এম. আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠানো হয়। এ ব্যাপারে একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।’



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top