ঢাকা বুধবার, ২৩শে জুন ২০২১, ৯ই আষাঢ় ১৪২৮


রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর ১০ উপায়


প্রকাশিত:
১০ জুন ২০২১ ১৫:০০

আপডেট:
২৩ জুন ২০২১ ১২:৩৬

ছবি: সংগৃহীত

বিশ্বব্যাপী করোনার প্রাদুর্ভাব ভয়াবহ রূপ ধারণ করছে। প্রতিদিন COVID-19 রোগে আক্রান্ত ব্যক্তির সংখ্যা এবং মৃত্যের সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। আমাদের দেশের পরিস্থিতিও এর ব্যতিক্রম নয়। উন্নত বিশ্বের দেশগুলো হিমশিম খাচ্ছে এত বিপুল পরিমাণ রোগীর চিকিৎসা দিতে গিয়ে। এমতাবস্থায় আমাদের উচিত প্রতিরোধের দিকে বেশি গুরুত্ব দেওয়া এবং এজন্য রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানো বা Immunity Boost করার দিকে বেশি মনোযোগী হওয়া উচিত। তাই আজকে করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে Immune System করার ১০টি কার্যকর উপায় সম্পর্কে বলব।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে অনেক রকম পন্থা অবলম্বন করা হয়। কিন্তু কিছু ভালো অভ্যাস তৈরি করলেই সেটি সামগ্রিক স্বাস্থ্যের উন্নতি করতে পারে। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে আরও শক্তিশালী করতে কিছু অভ্যাস-

১. পর্যাপ্ত ঘুম: অগোছালো জীবনযাত্রা স্বাস্থ্যের ওপর অনেক ক্ষতিকারক প্রভাব ফেলে। ঘুম না হওয়া বা কম ঘুম সে ক্ষতি আরও বাড়ায়। চিকিৎসকদের মতে, একজন মানুষের প্রতিদিন কমপক্ষে ৭-৮ ঘণ্টা ঘুমানো উচিত। প্রতিদিন একটি নির্দিষ্ট সময়ে ঘুমাতে যাওয়া এবং নির্দিষ্ট সময়ে ঘুম থেকে ওঠার অভ্যাস করতে হবে। এ অভ্যাসটি ঘুমের সময় নিয়ন্ত্রণ করার পাশাপাশি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতেও সহায়তা করে।

২. শরীরচর্চার অভ্যাস: প্রতিদিন নিয়ম মেনে শরীরচর্চা করার অভ্যাস করতে হবে। জিমে গিয়ে না করতে পারলে বাসায় শরীরচর্চা করতে হবে। এ ক্ষেত্রে যোগ-ব্যায়ামও ভালো কাজ করে।

৩. খাবার: শরীরকে ভালো রাখতে হলে অবশ্যই জাঙ্ক ফুড ও অস্বাস্থ্যকর খাবার এড়িয়ে চলতে হবে। কিছু খাবার আছে যেগুলো খেলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে। আদা, রসুন, ওটস, টমেটো, দই খেতে হবে।

৪. পানি: পানি আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য খবুই উপকারী। রোজ পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি পান করার অভ্যাস করতে হবে। প্রাপ্তবয়স্ক একজন ব্যক্তির সুস্থ থাকতে হলে দৈনিক গড়ে আড়াই থেকে তিন লিটার পানি পান করা উচিত। এটি শরীর থেকে টক্সিন বের করে দিতে এবং শরীরে তরলের ভারসাম্যতা বজায় রাখে। এর পাশাপাশি প্রতিদিনের খাবার তালিকায় পানিসমৃদ্ধ খাবার ও ফলমূল; যেমন— তরমুজ, কমলালেবু, লেটুস, স্ট্রবেরি খেতে হবে।

৫. হাস্যোজ্জ্বল থাকা: সুস্থ থাকার জন্য অবসাদ থেকে নিজেকে মুক্ত রাখা খুবই প্রয়োজনীয়। আত্মবিশ্বাসী, প্রেরণাদায়ক ও রসবোধসম্পন্ন মানুষ বেশি দিন বাঁচে।

৬. ধূমপান ও মদ্যপান থেকে বিরত থাকা: ধূমপান ও মদ্যপান শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা নষ্ট করে এবং রোগব্যাধি সংক্রমণের আশঙ্কাকে অনেকগুণ বাড়িয়ে তোলে। এগুলো স্বাস্থ্যকে খারাপ করে দেয় এবং মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেয়।

৭. পোষা প্রাণী: বাড়িতে পোষা প্রাণী মন খুশি রাখতে ভূমিকা রাখে। মানসিক চাপ থেকেই মুক্তি পাওয়ার পাশাপাশি যারা একা বসবাস করেন, তাদের ভালো সঙ্গী হিসেবে থাকতে পারে পোষা প্রাণী।

৮. ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখা : শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা অটুট রাখতে ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখার বিকল্প নেই। খাবার পরিমিত খান ও শরীরিকভাবে সচল থাকুন।

৯. মানসিক চাপমুক্ত থাকুন : অতিরিক্ত মানসিক চাপে আমাদের শরীরের Sympathetic activity বেড়ে যায় এবং কর্টিসল/Cortisol হরমোন নিঃসরণ হয়, যা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে ব্যাহত করতে পারে। তাই মানসিক চাপমুক্ত থাকার চেষ্টা করতে হবে। টিভি, সোশ্যাল মিডিয়াতে যে খবরগুলো আপনাকে মানসিক চাপে ফেলছে। সেগুলো থেকে দূরে থাকুন। মনকে Divert করার জন্য পরিবারের অন্য সদস্যদের সঙ্গে ভালো সময় কাটান, গান শুনুন, বই পড়ুন, মুভি দেখুন বা নতুন কিছু শিখতে মনোনিবেশ করুন। এছাড়া যোগ ব্যায়াম বা মেডিটেশন একটি খুব ভালো উপায় মনকে শান্ত রাখার।

১০. মধু : মধুতে এমন কিছু জীবাণু ধ্বংসকারী উপাদান রয়েছেন যেমন- হাইড্রোজেন পারঅক্সাইড, নাইট্রিক অক্সাইড যা RNA Virus এর বিরুদ্ধে কাজ করে। তাই ফ্লু উপসর্গে মধু বেশ উপকারী তবে ডায়াবেটিস রোগীদের ক্ষেত্রে সাবধানে খেতে হবে।

তথ্যসূত্র: বোল্ডস্কাই



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top