ঢাকা মঙ্গলবার, ৪ঠা আগস্ট ২০২০, ২১শে শ্রাবণ ১৪২৭


নিজেকে সতেজ রাখতে এবং তারুণ্যকে দীর্ঘস্থায়ী করতে...


প্রকাশিত:
৩১ জুলাই ২০২০ ০৯:২৯

আপডেট:
৪ আগস্ট ২০২০ ১১:৫৪

প্রতীকী ছবি

নিজেকে সতেজ রাখতে হলে, নিজের তারুণ্যকে দীর্ঘস্থায়ী করতে হলে প্রথমেই যেটা করতে হবে তা হলো- সতেজ ও তরুণ রাখার ইচ্ছা নিজের ভেতরে লালন করা। এ জন্য ঘুম ভাঙার সঙ্গে সঙ্গে বিছানার পাশের জানালা দিয়ে বাইরের সবুজ প্রকৃতি ৫ মিনিট দেখুন। এতে চোখের রেটিনার ওপরে সবুজের মিষ্টি ছোঁয়া দৃষ্টিকে দেবে মোলায়েম পরশ, যা চোখকে ভীষণ আরাম দেবে। ব্রেনকে রিলাক্স করবে। এরপর ছাদে বিশুদ্ধ ঠান্ডা বাতাসে হাঁটুন। এটি ব্যায়ামের ভীষণ উপযুক্ত সময়। সকাল ও সন্ধ্যায় কাজটি করতে পারেন।

রাতে শোয়ার সময় এক মুঠো ছোলা পরিষ্কার করে পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। সকালে ব্যায়ামের পর পাতলা কয়েক কুচি আদা দিয়ে ভেজানো নরম ফুলে ওঠা ছোলাটুকু খেয়ে নিন। এতে নার্ভগুলো সতেজ থাকবে। বয়স ত্রিশ বা তার বেশি হলে ফ্যাট বা চর্বি জাতীয় খাবার এড়িয়ে চলুন। এক বাটি ভেজিটেবল অথবা বাচ্চা মুরগির স্যুপ। সঙ্গে স্লাইস করা শসা ও গাজর। এক বাটি মসুর ডাল। সপ্তাহে ৪/৫ দিন বড় মাছ দুই টুকরো (কারণ মাছের ফ্যাট শরীরের বাড়তি মেদ কমায়। সম্ভব হলে ইলিশ মাছ বেশি খাবেন। এটি রক্তের কোলেস্টেরল কমাতে বেশি সাহায্য করে)। একটি কলা ও একটি আপেল। অল্প পরিমাণ বাদাম ভাজা। অতিরিক্ত কোলেস্টেরল রক্ত থেকে সরিয়ে দিয়ে এগুলো হার্ট রক্ষা করবে। রুটি অথবা ভাত যে কোনোটা বেছে নিতে পারেন। তবে পরিমিত।

বেশি করে পানি পান করবেন। রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে এক গ্লাস দুধ ও ফল খাবেন। দিনের বেলা খাওয়ার পর আধা ঘণ্টা হলেও বিশ্রাম নিন। তবে ঘুমাবেন না। রাতে খাবার পর একটু হাঁটুন। প্রতিদিন ঘুমানোর সময় নির্দিষ্ট করুন। রাত জাগার কারণে ত্বকের লাবণ্য নষ্ট হয়।

লেখক: স্বাস্থ্যবিষয়ক নিবন্ধকার
চক্ষুরোগ বিশেষজ্ঞ ও ফ্যাকো সার্জন
বিভাগীয় প্রধান, ইস্ট ওয়েস্ট মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল, উত্তরা, ঢাকা
০১৮৫৫৯৭৫৮৪৪, ০১৭১৭০৬৯৯৬



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top