ঢাকা মঙ্গলবার, ৭ই জুলাই ২০২০, ২৪শে আষাঢ় ১৪২৭


সাংবাদিক নান্নুর স্ত্রী, শাশুড়িসহ তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা


প্রকাশিত:
২৯ জুন ২০২০ ১৯:৪৫

আপডেট:
২৯ জুন ২০২০ ২০:০২

স্ত্রী শাহীনা আহমেদ পল্লবীর সাথে সাংবাদিক মোয়াজ্জেম হোসেন নান্নু। ফাইল ছবি।

রাজধানীর বাড্ডার আফতাব নগরের বাসায় অগ্নিদগ্ধ হয়ে দৈনিক যুগান্তরের সিনিয়র ক্রাইম রিপোর্টার মোয়াজ্জেম হোসেন নান্নুর মৃত্যুর ঘটনায় তাঁর স্ত্রী, শাশুড়িসহ তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

আজ সোমবার নান্নুর ছোট ভাই নজরুল ইসলাম খোকন রাজধানীর বাড্ডা থানায় মামলাটি করেন। মামলায় নান্নুর স্ত্রী, শাশুড়ি ও ইনফিনিটি গ্রুপের একজনকে আসামি করা হয়েছে।

বাড্ডা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পারভেজ ইসলাম গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আজ সকালে নিহতের ভাই বাদী হয়ে মামলা করেছেন। এখন তদন্ত হচ্ছে। তদন্তের পর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

অগ্নিকাণ্ডের পরে সাংবাদিক নান্নুর স্ত্রী শাহীনা আহমেদ পল্লবী জানান, রাত্রিকালীন অফিস শেষে বাসায় ফিরে খাওয়া দাওয়ার পর রাত ৩টার দিকে হঠাৎ করে শব্দ হয়। এর কিছুক্ষণ পর নান্নুর চিৎকার শুনতে পাই। পাশের কক্ষ থেকে বের হয়ে দেখি তার শরীরের পেছনের অংশে আগুন জ্বলছে। তিনি বাথরুমের দিকে যাচ্ছিলেন। গ্যাসের গন্ধও পাওয়া যাচ্ছিল। গ্যাস লাইনের লিকেজ থেকে সম্ভবত অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়। তাতেই দগ্ধ হন তিনি।

উল্লেখ্য, গত ১২ জুন রাত ১টার দিকে রাজধানীর বাড্ডার আফতাব নগরের ৩ নম্বর রোডের বি ব্লকের ৪৪/৪৬ নম্বর নিজ বাসায় হঠাৎ আগুন লাগে। দ্রুতই আগুন নির্বাপন হলেও দগ্ধ হন সাংবাদিক নান্নু। গুরুতর অবস্থায় তাকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়। ১৩ জুন শনিবার সকাল ৮টা ২০ মিনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি ইন্তেকাল করেন।

এর মাত্র ছয় মাস আগে গত ২ জানুয়ারি ওই একই বাসায় বিস্ফোরণে অগ্নিদগ্ধ হয়ে তাদের একমাত্র সন্তান মিউজিক ডাইরেক্টর পিয়াস (২৪) প্রাণ হারান।

নান্নু ক্রাইম রিপোর্টারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। ২০০৭ সালে তিনি ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ছিলেন।



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


সময়নিউজ ডট নেট
১৪৭/১, মীর হাজীরবাগ মেইন রোড (৬ষ্ঠ তলা) গেন্ডারিয়া, যাত্রাবাড়ী, ঢাকা-১২০৪।
মোবাইল: ০১৭১১-৯৫০৫৬২
ইমেইল : [email protected]; [email protected]
সম্পাদক: মো. জেহাদ হোসেন চৌধুরী

রংধনু মিডিয়া লিমিটেড এর একটি প্রতিষ্ঠান।

Top