ঢাকা মঙ্গলবার, ২৪শে নভেম্বর ২০২০, ১০ই অগ্রহায়ণ ১৪২৭


বিগ ব্যাশের দরজা বন্ধ সাকিবের জন্য


প্রকাশিত:
১৭ নভেম্বর ২০২০ ১৮:৪৫

আপডেট:
২৪ নভেম্বর ২০২০ ০৯:১৯

সাকিব আল হাসান। ফাইল ছবি

অতীতে থাকা দুর্নীতির অভিযোগ তুলে অস্ট্রেলিয়ার ঘরোয়া বিগ ব্যাশ টি-টোয়েন্টি লিগে সাকিব আল হাসানের খেলা নিয়ে আপত্তি তুলেছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার (সিএ) নৈতিক পুলিশ বিভাগ।

জুয়াড়ির প্রস্তাব গোপন করায় আইসিসি কর্তৃক এক বছরের নিষেধাজ্ঞা গত ২৯ অক্টোবরে শেষ করেছেন সাকিব। এর ফলে যে কোনও পর্যায়ে ক্রিকেট খেলতে এখন আর কোনও বাঁধা নেই সাকিবের। জাতীয় দলের পাশাপাশি বিভিন্ন ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক টুর্নামেন্টেও খেলতে কোনও বাঁধা নেই তার।

এদিকে, আগামী ১০ ডিসেম্বর থেকে শুরু হবে বিগ ব্যাশ টি-টোয়েন্টি লিগ। তবে দুর্নীতির বিপক্ষে জিরো টলারেন্স নীাতর কারণে সাকিবের সেখানে খেলার ওপর আপত্তি তোলা হয়। অস্ট্রেলিয়ার সংবাদ মাধ্যম ডেইলি টেলিগ্রাফ এমনটাই জানিয়েছে।

বাংলাদেশ থেকে একমাত্র সাকিবই বিগ ব্যাশে খেলেছেন। ২০১৩-১৪ সালে অ্যাডিলেড স্ট্রাইকার্সের হয়ে ও ২০১৪-১৫ মৌসুমে মেলবোর্ন রেনেগেডসের হয়ে বিগ ব্যাশে খেলেছেন বিশ্ব সেরা এ অলরাউণ্ডার।

অবশ্য সপ্তাহখানেক আগেই, ভার্চ্যুয়াল এক সংবাদ সম্মেলনে সাকিব বলেছিলেন- কিছু মানুষের এখনও তাকে নিয়ে সন্দেহ আছে। ডেইলি টেলিগ্রাফের বরাত দিয়ে সাকিব বলেন, ‘সবার অনুভূতি জানা সহজ নয়।’ তবে, এ বছর বিবিএলে খেলার প্রস্তাব পাননি ৩৩ বছর বয়সী সাকিব।

সম্প্রতি পাকিস্তান সুপার লিগে (পিএসএল) মুলতান সুলতানসের হয়ে খেলার প্রস্তাব পেয়েছিলেন সাকিব। মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ করোনায় আক্রান্ত হবার ফলে তাকে স্থলাভিষিক্ত করার প্রস্তাব দেয়া হয়।

কিন্তু শুরুতে প্লেয়ার ড্রাফটে তার নাম না থাকায় সেখানে অংশ নিতে পারেননি সাকিব। ২০১৯ সালের অক্টোবরে ক্যারিবীয়ান প্রিমিয়ার লিগে (সিপিএল) সর্বশেষ যে কোনও ফরম্যাটের ক্রিকেটে অংশ নিয়েছিলেন তিনি।

যদিও আসন্ন বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপে খেলার জন্য বর্তমানে মুখিয়ে আছেন সাকিব। সেই লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় অনুশীলনও করছেন সতীর্থদের সঙ্গে।



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top